ফটোওয়াকের ৭ প্রস্তুতি

ক্লিক ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
on May 28, 2015, updated December 15, 2015


 ফটোওয়াকের ৭ প্রস্তুতি

শীত আসছে। আসছে নরম রোদের দিন, কুয়াশা আর নানা উৎসব। স্বাভাবিকভাবেই বছরের এই সময়টায় থাকে ল্যান্ডস্কেপ থেকে শুরু করে স্ট্রিট ফটোগ্রাফির চমৎকার সুযোগ। বাংলাদেশে তরুণ ফটোগ্রাফারদের দলীয় কর্মকাণ্ডের মধ্যে ফটোওয়াক এখন দারুণ জনপ্রিয়। এই লেখাটি তরুণ আলোকচিত্রি, বিশেষ করে যারা এই শাখায় নবীন, তাদের সাহায্য করবে ফটোওয়াক থেকে ভালো ছবি তুলে আনতে। এখানে অনেক পরামর্শই হয়ত সরাসরি ভালো ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়, তবে পরোক্ষভাবে ঠিকই সাহায্য করবে আপনাকে। আসুন দেখে নেই ফটোওয়াকের প্রস্তুতি কেমন হওয়া উচিৎ-

১. পোশাক নির্বাচনে গুরুত্ব দিন

ফটোওয়াক মানেই কয়েক ঘণ্টা পায়ে হাঁটা পথ। তার মানে আপনার পোশাক হতে হবে যতদূর সম্ভব স্বস্তিদায়ক। আগেই জানার চেষ্টা করুন যেখানে যাচ্ছেন সেখানকার পরিবেশ কেমন হতে পারে। ধরা যাক, যেখানে যাচ্ছেন সেখানে বেশকিছু ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান রয়েছে এবং কিছু অংশে আপনাকে খালি পায়ে যেতে হবে। আপনি রওনা দিলেন লম্বা ফিতাওয়ালা বুটজুতা পরে। আাবার ধরা যাক এন জায়গায় যাচ্ছেন যেখানে মাটি এবরোখেবরো, ঢাল আছে এখানে-সেখানে আর আপনি গিয়ে হাজির হয়েছেন স্যান্ডেল পরে। ফলাফল কী হতে পারে ভেবে নিন।

২. ঝেড়ে ফেলুন বাড়তি জিনিস

সবার আগে বাদ দিন শ’খানেক পকেটওয়ালা ফটোগ্রাফারদের ভেস্ট। স্রেফ দরকারি জিনিসগুলো, আর বাদ দিন যেগুলো বাদ দিলেও চলে। মনে রাখবেন, আপনি স্রেফ কয়েক ঘণ্টার জন্য ছবি তুলতে যাচ্ছেন। তবে অবশ্যই সঙ্গে রাখুন দরকারি স্পেয়ার ব্যাটারি, মেমরি কার্ড, পরিচয়পত্র আর লেন্স পরিষ্কার করার জন্য ‘ক্লিনিং ক্লথ’ সঙ্গে রাখুন।

৩. এক লেন্স এক ক্যামেরা

এটি কেবল বাড়তি জিনিস ঝেড়ে ফেলার জন্য নয়, নিজেকে চ্যালেঞ্জ করার জন্যও এটি দরকার। ফটোওয়াক তো আর প্রফেশনাল অ্যাসাইনমেন্ট নয়, ফলে সীমাবদ্ধতার মধ্যে নিজেকে নিয়ে নিরীক্ষার সুযোগটি কাজে লাগান। অনেকের মতে, ভালো হয় যদি একটি ভালো জুম লেন্স সঙ্গে থাকে। সেক্ষেত্রে ৭০-২০০, ৭০-৩০০, ১৮-১৩৫ মিলিমিটার ফোকাল লেংথের লেন্স নিতে পারেন। আরেকটু সাহস করে স্রেফ একটি প্রাইম লেন্স নিয়ে চেষ্টা করবেন কি? ধরা যাক ৫০ বা ৮৫ মিলিমিটার?

৪. ক্যামেরা অন সবসময়

ফটোওয়াক থেকে সাধারণত যে ধরনের ছবি হয় তার বেশিরভাগই স্ট্রিট ফটোগ্রাফি শ্রেণির। ফলে, এই সুযোগগুলোও তৈরি হয় তাৎক্ষণিক। এ জন্য ক্যামেরাটি সবসময় অন রাখাই ভালো।

৫. একাধিক কম্পোজিশন, একাধিক ফ্রেম

কোনো একটি সাবজেক্টের হরাইজন্টাল এবং ভার্টিক্যালসহ একাধিক ফ্রেম নিয়ে রাখুন। কেবল হরাইজন্টাল ফ্রেম তোলার পর বাড়ি ফিরে মনে হতেই পারে যে, হয়ত ভার্টিক্যাল ফ্রেমটি আরও ভালো হত।

৬. প্রচুর হাঁটুন, দীর্ঘক্ষণ বসুন

কিছু ছবি আছে যেটা তুলতে হলে আপনাকে আগে নানা অ্যাঙ্গেল থেকে সাবজেক্টকে বুঝতে হবে। আবার বিছু ছবি আছে যেটার জন্য এক জায়গায় বসেই আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। বোঝার চেষ্টা করুন আপনি যে ফ্রেমটি চাইছেন, সেটি উপরে উল্লিখিত কোন ভাগে পড়ে।

৭. পরিবেশ সম্পর্কে জেনে নিন

যেখানে যাচ্ছেন, সেখানকার পরিস্থিতি আগেভাগে জেনে নিন। খেয়াল রাখুন বিশেষ কোনো প্রস্তুতি নেওয়া দরকার কিনা। যেখানে যাচ্ছেন, সেখানে ছবি তোলার বিষয়ে কোনো নিষেধাজ্ঞা আছে কিনা জেনে নিন তাও। আর জেনে রাখুন একজন নাগরিক হিসেবে আপনার অধিকারগুলো। অধিকাংশ স্থানে ছবি তোলার জন্য আপনার নাগরিক অধিকারই যথেষ্ট।

আশা করা যায়, আগামী ফটোওয়াকে আপনার প্রস্তুতি যথেষ্ট ভালো হবে।